মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

১) উপজেলা পর্যায়ে মৎস্য বিভাগীয় সার্বিক কর্মকান্ডে প্রধান হিসাবে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন, সংরক্ষন ও সম্প্রসারণে দায়িত্ব পালন করা।

২) লাগসই ভিত্তিক হ্যাচারি সম্পন্ন পোনা মাছ উৎপাদনের জন্য বেসরকারী নার্সারী মালিকদের সকল প্রকোর কারিগরি সাহায্য ও সহযোগিতা প্রদান ।

৩) উপজেলা উন্নয়ন সহায়তা তহবিলের সাহায্যে নিজ উপজেলায় সম্ভাব্য ক্ষেত্রে গুনগত মান সম্পন্ন পোনা উৎপাদন ও প্রদর্শনীর জন্য প্রদর্শণী নার্সারি কার্যক্রম পরিচালনা এবং তথ্যাদি সংরক্ষন।

৪) উপজেলা উন্নয়ন তহবিলের সাহায্যে বিলুপ্তপ্রায় ও অগ্রাধিকার প্রজাতির মাছের চাষ পদ্ধতি ও প্রদর্শনের জন্য প্রর্শনী খামার পরিচালনা ।

৫) মৎস্যচাষীদের বিজ্ঞান ভিত্তিক মৎস্য চাষের পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ প্রদান।

৬) ব্যাংক ঋণ প্রাপ্তিতে মৎস্যচাষী/মৎস্যজীবি/চিংড়িচাষী/উদ্যোক্তাদের প্রকল্প তৈরীসহ অন্যান্য কারিগরি সহায়তা প্রদান।

৭) উপজেলা উন্নয়ন তহবিলের মাধ্যমে মৎস্যচাষীদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মসূচী প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন।

৮) জরীপ ও তথ্য সংগ্রহঃ

  (ক) উপজেলায় অবস্থিত সরকারি (খাস) ও বেসরকারী সকল প্রকার পুকুর, দীঘি, নদী, খাল প্রভৃতি জলাশয়ের সংখ্যা এবং আয়তন সম্পর্কে তথ্যাদি সংগ্রহ ও যথাযথভাবে তা সংরক্ষণ।

(খ) উপজেলায় অবস্থিত বেসরকারী পর্যায়ে পুকুর, দীঘি, বিল, বাওড়, পাচনভূমি ও ধানক্ষেত ইত্যাদিতে মৎস্য চাষ কার্যক্রম বিস্তারিত তথ্যাদি হালনাগাদ সংগ্রহ এবং উৎপাদিত মাছের তথ্যাদি সংগ্রহ ও তা যথাযথভাবে সংরক্ষণ।

(গ) উপজেলায় অবস্থিত উন্মুক্ত জলাশয় নদী,নালা, খাল-বিল, পাচনভূমি ইত্যাদি হতে আহরিত মৎস্য বিষয়ক তথ্যাদি নিয়মিত সংগ্রহ ও সংরক্ষণ।

(ঘ) প্রাকৃতিক উৎসের সন্ধান এবং আহরিত রেনু/পোনার (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) উপাত্ত ও তা যথাযথ ভাবে সংরক্ষণ।

(ঙ) নিয়মিতভাবে উপজেলায় অবস্থিত প্রধান প্রধান মৎস্য অবতরন কেন্দ্র/মাছের আড়ত ও হাট বাজার পরিদর্শন করে Random Sampling পদ্ধতিতে বিক্রিত মাছের প্রধান প্রধান প্রজাতি ভিত্তিক মোট পরিমাণ, গড় সাইজ ও ওজন এবং কেজি প্রতি পাইকারী ও খুচরা বিক্রয় মূল্য এই তিন ধাপে বিক্রিত মাছের প্রজাতি ভিত্তিক টন প্রতি মূল্য ও আনুষাঙ্গিক তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ।

৯) জলমহাল ব্যবস্থাপনাঃ মৎস্য বিভাগীয় প্রকল্পভুক্ত উপজেলা পর্যায়ে জলমহালগুলোর জৈবিক ব্যবস্থাপনায় (Biological Management) এবং সংরক্ষণমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন লক্ষ্যে প্রকল্পের নীতিমালা/বিভাগীয় দিকেনির্দেশনা অনুযায়ী সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা/উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সদস্য সচিবিক দায়িত্ব পালন করেন।

১০) উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় সভা/বিভাগীয় সভা/আন্ত বিভাগীয় সভায় অংশগ্রহণ এবং জেলায় সংশ্লিষ্ট আধা-সরকারী অর্থ লগ্নী প্রতিষ্ঠান ও বেসরকারী সংস্থার সাথে সমন্বয়সাধন।

১১) মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ এবং এতদসংক্রান্ত পরবর্তী সংশোধনীর আলোকে মৎস্য সংলক্ষণ আইন বাস্তবায়ন ও এতদসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংরক্ষণ ও উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ।

১২) উপজে লায় অবস্থিত বেসরকারী পর্যায়ে পরিচালিত কার্প/চিংড়ি ও অন্যান্য প্রজাতির হ্যাচারীর সংখ্যা, আয়তন অবস্থান ও স্থাপনা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি হ্যাচারি ওয়ারী পৃথক পৃথক তথ্য সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও প্রাণীতব্য নীতিমালার আলোকে তা নিবন্ধন করার ব্যবস্থা গ্রহণ।

১৩) উপজেলায় অবস্থিত বেসরকারী পর্যায়ে পরিচালিত কার্প/চিংড়ি ও অন্যান্য প্রজাতির হ্যাচারীর সংখ্যা, আয়তন অবস্থান ও স্থাপনা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি হ্যাচারীওয়ারী পৃথক পৃথক তথ্য সংগ্রহ, সংলক্ষণ ও প্রাণীতব্য নীতিমালার আলোকে তা নিবন্ধন করার ব্যবস্থা গ্রহণ।

১৪) নতুন বেসরকারী খামার (কমপক্ষে ৫.০০ একর জলায়তন বিশিষ্ট) স্থাপনের পূর্বে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা/উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা খামার স্থাপনে সহযোগিতা সম্পর্কে প্রত্যয়ন প্রদান।

১৫) বেসরকারী ভাবে নতুন কোন মাছের প্রজাতি উপজেলা পর্যায়ে চাষীর খামারে চাষ শুরু হলে জীববৈচিত্রের কোন প্রভাব ফেলবে কি না এবং উহার চাষ পদ্ধতি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করে তরিৎ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিতকরণ।

১৬) মাছ/চিংড়ি খামারে ব্যবহৃত মৎস্যজাত ভেজাল নিরোধ ও গুনগতমান সংরক্ষণের জন্য মৎস্য খাদ্যের দোকান পরিদর্শন ও নমুনা সংগ্রহ করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ।

১৭) উপজেলা পর্যায়ে বিভাগীয় দিকনির্দেশনার আলোকে বাৎসরিক বিভিন্ন কর্ম পরিকল্পনা প্রনয়ন করে তা যথাযথভাবে দক্ষতার সাথে বাস্তবায়ন।  

১৮) উপজেলা পর্যায়ে মৎস্য অভয়াশ্রমের অনুসরণে মন্দা, কুয়া ইত্যাদি স্থাপনের মাধ্যমে সনাতনী প্রজাতির মাছ/বিলুপ্ত প্রায় প্রজাতির মাছ সংরক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ।

১৯) স্থানীয় সরকারি মৎস্যবীজ উৎপাদন খামারের (যদি থাকে) উৎপাদন, বিপণন বিষয়ে খামার ব্যবস্থাপককে সার্বিক সগৎহযোগিতা প্রদান।

২০) মৎস্য অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন ক্ষুদ্রঋণ সম্পর্কিত প্রকল্প (সমাপ্ত প্রকল্পসহ/কর্মসূচীতে বরাদ্দকৃত টাকা সরকারী বিধি/প্রকল্পের নীতিমালা ও দিক নির্দেশনা মোতাবেক সংশ্লিষ্ট মৎস্যচাষীদের মাঝে বিতরণ ও নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার মৎস্য ও অন্যান্য সামগ্রী উৎপাদন নিশ্চিত করে ঋণের টাকা আদায়ের ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ।

২১) মৎস্য অধিদপ্তর কর্তৃক গৃহীত ও বাস্তবায়নাধীন উন্নয়ন প্রকল্প সমূহের বাস্তবায়ন নীতিমালা ও দিক নির্দেশনায় বর্ণিত দায়িত্ব পালন।

২২) মৎস্য বিভাগীয় বাস্তবায়নাধীন উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের আওতায় মৎস্য চাষীদের অনুমোদিত প্রশিক্ষণ ম্যানুয়েল অনুযায়ী মৎস্য চাষীদের গুনগতমান সম্পন্ন প্রশিক্ষণ প্রদান নিশ্চিতকরণ এবং তথ্য সংরক্ষণ ।

২৩) প্রকল্প বহির্ভূত প্রশিক্ষণ কার্যেক্রমের অতিরিক্ত প্রশিক্ষণ কার্যক্রম হিসেবে বরাদ্দ পাওয়া সাপেক্ষে প্রকল্প বহির্ভূত এলাকা মৎস্যচাষীদের সংযোগ মৎস্য চাষী হিসাবে সংগঠিত করে প্রতি বছর প্রতি ইউনিয়নে 20 হতে 25 জন মৎস্যচাষীকে সংযোগ মৎস্যচাষী দল গঠনপূর্বক বছরে ১২ টি দলে/গ্রুপে মোট ৩০০ জন সংযোগ মৎস্যচাষীকে তাদের পুকুর পাড়ে স্বল্প কালীন সময়ে (৩ থেকে ৫ ঘন্টা) প্রদর্শণীমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান নিশ্চিত করতঃ সংরক্ষণ।

২৪) মৎস্য বিভাগীয় বাস্তবায়নাধীন উন্নয়ন প্রকল্পসেমূহের প্যাকেজ ভিত্তিক বাজেট বরাদ্দ পাওয়া সাপেক্ষে মৎস্য চাষীদের মধ্যে ১০ জন সফল মৎস্যচাষী/খামারী/নার্সারী মালিকগনকে নিবিড় পরিদর্শন ও তদারকির আওতাধীন এনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পরিদর্শনের জন্য তাদেরকে প্রস্তুতকরণ এবং তাদের নিজ নিজ মৎস্য চাষ কার্যক্রমের যাবতীয় খতিয়ান হালনাগাদ করে অফিসে সংরক্ষন।

২৫)দপ্তরের অধীনস্থ কর্মকর্তা/কর্মচারীদের মাঝে বাস্তব অবস্থা ও তাদের দক্ষতার নিরিখে তাদের মাঝে কার্যক্রম বন্টন ও বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা।

২৬) অফিস প্রধান হিসেবে তার আওতাধীন/দপ্তরস্থ যাবতীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি যথোপযুক্ত ব্যবহার সংরক্ষন নিশ্চিত করা।

২৭) আয়ন-ব্যয়ন কর্মকর্তা হিসাবে সরকারী অর্থ ব্যয়ে সর্বদা সতর্ক ও যত্নবান থাকতে হবে এবং অর্থ ব্যয় সংক্রান্ত যাবতীয় হিসাব নিকাশ অর্থ বিধি অনুযায়ী সংরক্ষন করতে হবে।

২৮) বিভাগীয় উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ ও চাহিদা মোতাবেক নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাঙ্গিত প্রতিবেদনসমূহ সঠিক ও যথাযথভাবে প্রণয়ন/প্রেরণ করা।

২৯) উপজেলা পর্যায়ে মৎস্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধি হিসাবেসংশ্লিষ্ট আন্তঃবিভাগীয় দপ্তরের মাঝে সমন্বয় সাধন ও জনস্বার্থমূলক কার্যেক্রমে অংশগ্রহণ।

৩০) মৎস্য বিভাগীয় যাবতীয় কার্যক্রমে (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক/যোগাযোগ স্থাপন করা।

৩১) প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে সর্বক্ষেত্রে মৎস্য বিভাগীয় সুনাম অক্ষুন্ন রেখে জনগনের জবাবদিহিতামূলক মন ও মানসিকতা পোষন করা।

৩২) অধীনস্থ কর্মকর্তা/কর্মচারীদের বার্ষিক গোপনীয় প্রতিবেদন প্রণয়ন ও প্রতিস্বাক্ষরে জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রেরণ।

৩৩) সময় সময় বিভাগীয় উর্ধ্বতন কর্তৃক অর্পিত অন্যান্য দায়িত্ব পালন।


Share with :

Facebook Twitter